সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২১ ৭ : ০৮ অপরাহ্ণ
Breaking News
Home / Tech / ২০১৭ এর অক্টোবরেই ধ্বংস হবে পৃথিবী ! জেনে নিন বিস্তারিত…

২০১৭ এর অক্টোবরেই ধ্বংস হবে পৃথিবী ! জেনে নিন বিস্তারিত…

এর আগেও এমন দিনক্ষন ঘোষণা দিয়ে বারকয়েক ভবিষ্যৎবানী এসেছিলো । ফের এ দফায় ‘পিলে চমকানো’ এক ঘোষণায় একদল গবেষকের দাবী মাত্র কমাস পরেই অর্থাত ২০১৭ সালের অক্টোবরেই নাকি ধবংস হতে চলেছে পৃথিবী নামের এই গ্রহ! তাদের দাবীমতে নিছক ‘ভবিষ্যৎবানী’ নয় বরং গবেষণার ভিত্তিতেই তারা নাকি এমন ঘোষণা দিয়েছেন।

 গবেষক ডেভিড মিডের গবেষণার তথ্যমতে, পৃথিবীর শেষ দিন প্রায় আসন্ন। ২০১৭ এর অক্টোবরেই ধ্বংস হতে চলেছে পৃথিবী! এমনই এক ভয়ংকর বিষয় উঠে এসেছেতাঁর বিখ্যাত বই ‘প্ল্যানেট এক্স: দ্য ২০১৭ অ্যারাইভাল’ বইটিতেই ! গবেষকের প্রকাশিত বইয়ে উল্লেখ করা হয়েছে, নির্দিস্ট সময়ে একটি বিশাল বড় গ্রহ এসে সজোরে ধাক্কা মারবে পৃথিবীকে। আর তাতেই ভেঙে চুড়মার হয়ে যাবে এই গ্রহটি।

গবেষণার বরাত দিয়ে তিনি স্পষ্টই জানিয়েছেন, এই বছরের আগামি সেপ্টেম্বর এবং অক্টোবরেই এই ভয়ংকর ঘটনাটি ঘটতে চলেছে। আর এই ধ্বংস যে অবশ্যাম্ভাবীই তার জ্বলন্ত প্রমাণও রয়েছে বলেও দাবী করেন তিনি।

তার দেয়া তথ্যের উপর ভিত্তি করেই নাকি ইতমধ্যে বিশ্বের ধনী ব্যক্তিরা নতুন বাঙ্কার তৈরি করেছে এই ধ্বংসাত্মক পরিস্থিতির মধ্যে বেঁচে থাকার জন্য।

এই প্রসঙ্গে মিডে বলেন, শুধু আমিই নই এই গবেষণার কথা অনেকেই জানেন, তবে মানুষের মধ্যে যাতে ‘প্যানিক সৃষ্টি না হয় তাই ইচ্ছে করেই এই বিষয়টি সম্পর্কে মানুষকে অন্ধকারের মধ্যে রাখা হয়েছে।

মিডে’র দাবী সাম্প্রতিক সময়ে ভূমিকম্পের পরিমাণও বেড়ে যাবে প্রবল ভাবে। অন্যদিকে, কম্পনের মাত্রাও যত দিন যাবে তত বৃদ্ধি পাবে।

কথিত এই ‘ধবংসযজ্ঞের’ বর্ননায় গবেষকের দাবি, নেপচুনের পরেও রয়েছে একটি গ্রহ যেটি প্ল্যানেট এক্স কিংবা নিবিড়ু নামে পরিচিত। ওই গ্রহটিই পৃথিবীকে ধ্বংস করতে চলেছে। এর আগেও ২০১৫ সালের ডিসেম্বরে এবং সেপ্টেম্বরে এই প্ল্যানেট এক্সের দ্বারা পৃথিবী ধ্বংস হতে চলেছিল। তখন অল্পের জন্যই বেঁচে যায় পৃথিবী বলেও উল্লেখ করেন এই গবেষক।

তবে এই গবেষকের এমন ভবিষ্যতবাণীকে উড়িয়ে দিয়ে নাসা জানিয়েছে, নিবুড়ুর এই বিষয়টি সম্পূর্ণভাবেই ভিত্তিহীন। এই বিষয়টির কোনও তথ্যপ্রমাণই নেই। যদি আগামি অক্টোবরে এই গ্রহটির জন্যই পৃথিবী ধ্বংস হয় তাহলে এই গ্রহটি ইতিমধ্যেই দেখা যেতো আকাশে। এমনটাই দাবি করেছে নাসার জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা।

Check Also

জীবননগর -কালীগঞ্জ মহাসড়কের বৈদ্যনাথপুরে ঘাতক ট্রাক্টর কেড়ে স্কুল ছাত্রীর প্রাণ

আল-আমিন হাসাদাহ থেকেঃ শুকতারার আর যাওয়া হলো না অসুস্থ নানাকে দেখতে। নানাকে একটিবার শেষ দেখার সুযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *