জানুয়ারি ২২, ২০২১ ২ : ৪৭ অপরাহ্ণ
Breaking News
Home / Tech / জীবননগর হাসাদহে সাংবাদিক লাঞ্ছিতের ঘটনায় অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা জুম্মাত মন্ডলের ভুল স্বীকারঃ মুচলেকা দিয়ে নিষ্পত্তি

জীবননগর হাসাদহে সাংবাদিক লাঞ্ছিতের ঘটনায় অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা জুম্মাত মন্ডলের ভুল স্বীকারঃ মুচলেকা দিয়ে নিষ্পত্তি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ জীবননগর উপজেলার হাসাদাহে স্থানীয় দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার সাংবাদিক ফেরদৌস ওয়াহিদ কে লাঞ্চিত করার ঘটনায় ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন হাসাদাহ ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ও ইউপি সদস্য জুম্মাত আলী মন্ডল। গতকাল শনিবার সকাল ৯ ঘটিকার সময় জীবননগর দৈনিক সময়ের সমীকরণ এর অফিসে অভিযুক্ত জুম্মাত আলী মন্ডল, হাসাদাহ গ্রামের মৃত হামিদুল মন্ডলের ছেলে আব্বাস, মগরেব মেম্বরের ছেলে মাসুম ও তার অনুসারীরা এসে ভুল স্বীকার করে ক্ষমা প্রার্থনা করে ও উপস্থিত সাংবাদিক ও সুধিমহলের কাছে এই মর্মে অঙ্গিকারবদ্ধ হয় যে, আগামী দিসগুলোতে তারা এই ধরনের কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটাবে না এবং তারই পরিপ্রেক্ষিতে অভিযুক্ত ব্যক্তিরা লিখিত মুচলেকা দিয়ে রেহাই পান। এই সময় উপস্থিত ছিলেন দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার জীবননগর ব্যুরো প্রধান জাহিদ বাবু, চ্যানেল এস টিভির জেলা প্রতিনিধি ও দৈনিক সময়েন সমীকরণ পত্রিকার সহকারী ব্যুরো প্রধান মিঠুন মাহমুদ, অনলাইন আলোকিত চুয়াডাঙ্গার সম্পাদক প্রকাশক ও প্রতিদিনের নতুন খবর পত্রিকার প্রতিনিধি মনিরুজ্জামান রিপন, দৈনিক মাথাভাঙ্গার হাসাদাহ প্রতিনিধি আল-আমিন, দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার জীবননগর শহর প্রতিনিধি শাকিল আহমেদ, অভিযুক্ত ব্যক্তিরা সহ জীবননগর উপজেলার সুধিমহল ও অন্যন্য সাংবাদিকবৃন্দ।
উল্লেখ্য, গত ২৯মে জীবননগর উপজেলার হাসাদাহ হিন্দু পাড়ার লালু খোড়ার ছেলে শিমুল (২৫) পার্শ্ববর্তী মহেশপুর উপজেলার একতার গ্রামের শুকুর আলীর মেয়ে হাসাদাহ মডেল ফাজিল মাদরাসার ৮ম শ্রেণি পড়–য়া ছাত্রী সুমাইয়া খাতুন (১৩) কে ধর্ষনের অপচেষ্টা চালায়। এরই প্রেক্ষিতে ঐ দিনই বিকালে হাসাদাহ বাজারে জুম্মাত আলী মন্ডলের নের্তৃত্বে শালিশ সভার আহ্বান করা হয়। এমন সময় স্থানীয় দৈনিক সময়ের সমীকরণ পত্রিকার সাংবাদিক সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে উপরোক্ত ব্যক্তিবর্গ ঐ সাংবাদিককে লাঞ্চিত করে।

Check Also

জীবননগর -কালীগঞ্জ মহাসড়কের বৈদ্যনাথপুরে ঘাতক ট্রাক্টর কেড়ে স্কুল ছাত্রীর প্রাণ

আল-আমিন হাসাদাহ থেকেঃ শুকতারার আর যাওয়া হলো না অসুস্থ নানাকে দেখতে। নানাকে একটিবার শেষ দেখার সুযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *